Sidebar Ads




শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় জেলাজুড়ে বিজয় দিবস উদযাপন

আজ ১৬ ডিসেম্বর মহান মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের ৪৯তম বার্ষিকী। বীরের জাতি হিসেবে আত্মপ্রকাশসহ পৃথিবীর মানচিত্রে বাংলাদেশ নামে একটি স্বাধীন ভূখণ্ডের নাম জানান দেওয়ার দিন আজ। বিজয়ের দিনে শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় চাঁপাইনবাবগঞ্জসহ দেশজুড়ে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহিদদের স্মরণ করা হয়েছে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জে নানা কর্মসুচির মধ্য দিয়ে জেলায় রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক বিভিন্ন সংগঠন, সরকারি-বেসরকারি দপ্তর, সাধারণ মানুষের পক্ষ থেকেও স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।
তবে কোভিড -১৯ প্রাদুর্ভাবের কারণে এ বছর বিজয় দিবস কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়নি। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসটির সূচনা। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে পুরাতন স্টেডিয়ামে ৩১ বার তোপধ্বনির ম্যধদিয়ে শুরু হয় জেলা প্রশাসন আয়োজিত বিভিন্ন কর্মসূচি। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে শহীদ স্মৃতি নামফলকে এবং পরে সরকারী কলেজে সামনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করা হয়।
জেলা প্রশাসক মো. মঞ্জুরুল হাফিজের নেতৃত্বে জেলা প্রশাসন, পুলিশ সুপার এএইচএম আবদুর রকিবের নেতৃত্বে পুলিশ প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মইনুদ্দীন মন্ডলের নেতৃত্বে জেলা পরিষদ, মেয়র মোহাম্মদ নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা, সিভিল সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরীর নেতেৃত্বে সিভিল সার্জন অফিস, আওয়ামী লীগ এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন, বিএনপি ও এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন, জাসদ ও এর অঙ্গ সংগঠন, এলজিইডি, সড়ক ও জনপথ বিভাগ, জনস্বাস্থ্যা প্রকৌশল অধিদপ্তর, পানি উন্নয়ন বোর্ড, ইসলামিক ফাউন্ডেশনসহ সরকারি দপ্তর, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ সর্বস্তরের মানুষ ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
দিবসটি উপলক্ষে সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে শহীদ স্মৃতি ফলকে এবং বিএনপি চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা শহীদ মিনারে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে।
এরআগে চাঁপাইনবাবগঞ্জের জেলা প্রশাসক মঞ্জুরুল হাফিজ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে বঙ্গবন্ধু মঞ্চে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন।
এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়
এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ (ইবিএইউবি)-এর উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়। পতাকা উত্তোলন, পুষ্পস্তবক অর্পণ, ভার্চুয়াল আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে দিবসটি উদযাপন করা হয়। এছাড়া ক্যাম্পাস আলোকসজ্জা করা হয়। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এবিএম রাশেদুল হাসান জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। এরপর উপাচার্যের নেতৃত্বে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সংলগ্ন শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের নাম সংবলিত স্মৃতিফলকে এবং মুক্তমঞ্চে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করার মাধ্যমে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।
এদিকে সন্ধ্যায় ‘জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে জাতীয় সমৃদ্ধি অর্জন শীর্ষক এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ নিউজ/ নিজস্ব প্রতিবেদক/ ১৬-১২-২০

Powered by Blogger.

Tags

Categories

Categories

Advertisement

Main Ad

International

Auto News

Tags

Chapainawabganjnews

Popular Posts

Popular Posts