Business




চাঁপাইনবাগঞ্জে দেখা গেলো গভীর সমুদ্রের পাখি ব্রিডলেড টার্ণ

আমি কখনো সমুদ্র দেখিনি।সমুদ্র থেকে অনেক দূরে চাঁপাইনবাবগঞ্জে গভীর সুদ্রের পাখি দেখবো, এটা কখনো চিন্তাও করিনি।
করোনা ভাইরাসের কারনে কয়েকমাস পাখির ছবি তোলা হয়নি। গত ২২ মে রাতে বার্ডার মুহাম্মদ তারিক হাসান ফোন করে বললেন রাজশাহীতে পদ্মা নদীতে গভীর সমুদ্রের ৪টা পাখি পাওয়া গেছে, আগামীকাল পদ্মায় যাবেন নাকি। তার কথায় রাজি হয়ে গেলাম। ২৩ মে সকালে দু’জনে রওয়ানা হলাম সদর উপজেলার বাখেরআলী ঘাটে।সেখানে একটি নৌকা ভাড়া করে নতুন পাখি পাওয়ার আশায় ঘুরছিলাম একটি চরের পাশ দিয়ে। দেখা গেলো বেশ কিছু হট টিটি (Red-wattled Lapwing), নদী টিটি (River Lapwing), পাতি শরালী (Lesser-Whistling Duck), শামুক খোল (Asian Openbll), ধলা গলা মানিক জোড় (Asian Wooly-neck)সহ বিভিন্ন নদীর পাখি। প্রায় ঘন্টাখানেক ঘোরার পর উজানে যাওয়ার সময় এক জোড়া পাখি উড়ে আসতে দেখে দু’জনেই ক্যামেরা তৈরি রাখি, কাছাকাছি আসতেই কয়েকটি উড়ন্ত পাখির ছবি তুলি। দীর্ঘক্ষণ খুঁজেও আর পাওয়া যায়নি। ছবি তুলে দু”জনেই খুব আনন্দিত হয়েছিলাম, বললাম যাক আসাটা বৃথা যায়নি। তবে এর পরিচয় নিয়ে দু’জনেই নিশ্চিত হতে পারছিলাম না। পরে সন্ধ্যায় এর নাম জানতে পারি এটা গভীর সমুদ্রের পাখি ব্রিডলেড টার্ন (Bridled Tern).   অধিকতর নিশ্চিত হওয়ার জন্য পাখি বিশেষজ্ঞ রেজা খানকে ছবিগুলো পাঠায়।তিনি নিশ্চিত করেন এটা Bridled Tern. Laridae পরিবারের এই পাখিটির বৈজ্ঞানিক নাম Onychoprion anaethetus. মাঝারী আকারের পাখিটির দৈর্ঘ্য ৩০-৩২ সে:মি:, সূত্র উইকিপিডিয়া ।

Bridled Tern গভীর সমুদ্রের পাখি।ধারনা করা হচ্ছে ঝড় আম্পানের কারনে পাখিটি এই দিকে চলে আসে।
গত ২১ ও ২২ মে রাজশাহীতে ৪টি ও ঢাকায় একটি সামুদ্রিক পাখি দেখা যায়। গত ২২ তারিখ প্রথম এই পাখিটি দেখা যায় রাজশাহীর পদ্মা নদীতে। এর প্রথম ছবি তোলেন রাজশাহীর পাখি প্রেমী মঈনুল আহসান শামীম। তিনি জানান,
Bridled Tern ছাড়াও ২১ ও ২২ তারিখ তিনি Sooty Tern, Wilson's Storm-petrel Long-tailed Skua পাখির ছবি তোলেন। এর পর অনেকেই ছবি তুলেছেন।

এছাড়াও শেঠ মিলার ২১ মে ঢাকায় লালমাটিয়ায় উড়ে যাবার সময় ছবি তোলেন Wedge-tailed Shearwater. এই পাঁচটি পাখি বাংলাদেশে নতুন রেকর্ড। এর আগে গভীর সমুদ্রের এই পাখিগুলোকে কখনও দেখা যায়নি।
বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের সহ সভাপতি সায়াম ইউ. চৌধুরী জানান, ব্রিডলেড টার্ণ সামুদ্রিক পাখি। ঘুর্ণিঝড় আম্পানে এই পাখি সমতলভূমিতে চলে আসে। বিশেষ করে এটি রাজশাহী অঞ্চলের পদ্মা নদীতে যেখান দিয়ে ঘুর্ণিঝড় যায়।রাজশাহী এবং চাঁপাইনবাগঞ্জ এলাকায় পাখিটি গত কয়েকদিন থেকে দেখতে পাওয়ার রেকর্ড পাওয়া গেছে। এই প্রজাতিটি গভীর সমুদ্রে ক্রান্তীয় ও উষ্ণমন্ডলীয় আবহাওয়ায় থাকে। আমাদের দেশের কাছাকাছি এদের দক্ষিন ভারত ও শ্রীলংকায় প্রজননের সময় দেখা যায়। এটি শ্রীলংকার গভীর সমুদ্রের পাখি হিসাবে পরিচিত। এই পাখিগুলো আবার গভীর সমুদ্রে ফিরে যাবে বলে বিশেষজ্ঞদের ধারনা।



চাঁপাইনবাবগঞ্জ নিউজ/ রবিউল হাসান ডলার / ২৪-০৫-২০

,

Games

Powered by Blogger.

Tags

Categories

Advertisement

Main Ad

International

Auto News

Subscribe Us

Breaking News

Video Of Day

Video Example
Chapainawabganjnews

Popular Posts