Sidebar Ads




তরুনদের হাতে গেল ঠিকাদার সমিতির নেতৃত্ব ❀ জীবন সভাপতি রাসেল সাধারণ সম্পাদক

চাঁপাইনবাবগঞ্জে কর্মরত ঠিকাদারদের অধিকার প্রতিষ্ঠা সমস্যা সমাধান সহযোগিতার লক্ষে প্রায় ৩ দশক আগে প্রতিষ্ঠিত চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ঠিকাদার সমিতির নেতৃত্ব এবার গেল তরুনদের হাতে। শনিবার দিনব্যাপি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সমিতির র্শীষ পদ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন যথাক্রমে তরুন ঠিকাদার সৈয়দ জিয়াউল হক জীবন ও রুহুল আমীন রাসেল। জেলা ঠিকাদার সমিতির যাত্রা শুরুর পর থেকে যারা নেতৃত্বে এসেছেন এবং নেতৃত্বের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন তাঁদের মধ্যে বয়সের বিচারে জীবন-রাসেল সর্বকণিষ্ঠ।
ঠিকাদার সমিতির নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায় ঠিকাদার সমিতির ১৫টি নির্বাহী পদের জন্য শনিবার সকাল ৯ টা থেকে বিরতীহীনভাবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হয়। নির্বাচনে তিনটি প্যানেল ও দু’জন স্বতন্ত্র প্রার্থী মিলিয়ে ৪৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। উৎসবমুখর ও শান্তিপুর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ শেষে রাত ১টার দিকে ফলাফল ঘোষণা করা হয়। নির্বাচনের প্রিজাইডিং অফিসার অ্যাডভোকেট আবু বাক্কার এ ফলাফল ঘোষনা করেন।
ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী সভাপতি পদে সৈয়দ জিয়াউল হক জীবন পেয়েছেন ২৬৫ ভোট। তার কাছের প্রতিদ্বন্দ্বি ঠিকাদার সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন পেয়েছেন ২২৫ ভোট। সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী মেসবাহুল সাকের জঙ্গি পেয়েছেন ১৮১ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে রুহুল আমীন রাসেল পেয়েছেন ৩১৯ ভোট। তার কাছের প্রতিদ্বন্দ্বি আব্দুল জলিল পেয়েছেন ২৮৩ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী অন্য প্রার্থী রবিউল ইসলাম পেয়েছেন ৬৭ ভোট ও রুহুল আমীন পেয়েছেন ৭ ভোট।
সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে হাবিবুর রহমান হাবির পেয়েছেন ৩০৭ ভোট। তার কাছের প্রতিদ্বন্দ্বি নবিউল ইসলাম বকুল পেয়েছেন ২৭৭ ভোট এবং অন্য প্রার্থী ওবায়দুল ইসলাম পাঠান পেয়েছেন ৭০ ভোট। সহসভাপতি পদে শাহীনুল ইসলাম শাহীন পেয়েছেন ২৭২ ভোট। তার কাছের প্রতিদ্বন্দ্বি রেজাউল করিম পেয়েছেন ২৫২ ভোট এবং অন্য প্রার্থী মসফিকুল রহমান টিটো ১০৯ ভোট পেয়েছেন। সহ-সম্পাদক পদে মাহফুজুর রহমান বাবু পেয়েছেন ৩০৮ ভোট। তার কাছের প্রতিদ্বন্দ্বি সেলিম রেজা ২৮৭ ভোট পেয়েছেন। কোষাধ্যক্ষ পদে সৈয়দ আশিকুজ্জামান রনি পেয়েছেন ২৯৮ ভোট। তার কাছের প্রতিদ্বন্দ্বি আনোয়ার হোসেন ২৪৩ ভোট পেয়েছেন এবং অন্য প্রার্থী হেলাল উদ্দীন পেয়েছে ১২৬ ভোট। দপ্তর সম্পাদক পদে আনোয়ার হোসেন টুনু পেয়েছেন ২৮৬ ভোট। তার কাছের প্রতিদ্বন্দ্বি আশাদুজ্জামান সেলিম পেয়েছেন ২৫২ ভোট এবং অন্য প্রার্থী কামরুল আহসান নান্টু পেয়েছেন ৮৪ ভোট। ক্রীড়া সম্পাদক পদে আবুল কালাম আজাদ চান্দ পেয়েছেন ২৮২ ভোট। তার কাছের প্রতিদ্বন্দ্বি আব্দুল মতিন পেয়েছেন ২৫৭ ভোট এবং অন্য প্রার্থী এম কোরাইশী বিপ্লব ৯৩।
নির্বাহী সদস্য পদে মনির হোসেন বকুল ৩০৯ ভোট পেয়ে, শামসুল আলম ২৯৯ ভোট পেয়ে, আকবর আলী খাঁন ২৯৭ ভোট পেয়ে, বাদল আলী ২৮১ ভোট পেয়ে, শীষ মোহাম্মদ ২৮১ ভোট পেয়ে, আবুল কালাম আজাদ ২৪৬ ভোট পেয়ে এবং ওহেদুল নবী ২৪৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।
সমিতি সূত্র জানিয়েছে নির্বাচনে ঠিকাদার সমিতির সাবেক নেতা তৌহিদুর রহমানের সমর্থনপুষ্ট জীবন-বকুল- রাসেল পরিষদের ৮ জন নির্বাচিত হয়েছেন। বাকি ৭ জনের ৬জন ঠিকাদার সমিতির সাবেক নেতা খাইরুল ইসলামের সমর্থনপুষ্ট জঙ্গি-হাবিব-জলিল-রনি পরিষদ থেকে নির্বাচিত হয়েছে। ইকবাল-রবিউল পরিষদ থেকে সদস্য পদে মাত্র ১ জন নির্বাচিত হয়েছেন।
নির্বাচনে মোট ৭৪৬ জন ভোটারের মধ্যে ৬৯৭ জন ভোটার তাঁদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। ভোট প্রদানের শতকরা হার ৯৩.৪৩ ভাগ।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ নিউজ/ নিজস্ব প্রতিবেদক/ ০৯-০৯-১৮

Powered by Blogger.

Tags

Categories

Categories

Advertisement

Main Ad

International

Auto News

Tags

Chapainawabganjnews

Popular Posts

Popular Posts