Business




আওয়ামী লীগের ‘শেকড়’ সম্মানে ব্যতিক্রমী আয়োজন

বাঙ্গালির স্বাধিকার আন্দোলন ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের নেতৃত্বদানকারী সংগঠন আওয়ামী লীগের চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার প্রয়াত নেতাদের স্মরণ করতে শনিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে গেল ব্যতিক্রমী এক আয়োজন। আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ডা. গোলাম রাব্বানী চাঁপাইনবাবগঞ্জ টাউন কাব মিলনায়তানে এই আয়োজন করেন।
 প্রাচীন এই সংগঠনের প্রয়াত নেতাদেরকে ‘ তোমাদের দেখানো পথ আমাদের চলার অনুপ্রেরণা’ উল্লেখ করে গেল কয়েক ক’দিন ধরে আওয়ামী লীগের রইস উদ্দীন থেকে শুরু করে ডা আ. আ. ম মেসবাহুল হক বাচ্চু, সেরাজুল হক শনি মিয়া, অধ্যাপক জিকেএম শামসুল হুদা, ডা. বুলবুল-এ-গুলেস্তান, এ্যাড. শামসুল হক, নাসির উদ্দীন আহম্মেদ, ফজলুর রহমান, আলমগীর আজিজি, বিচারপতি বজলার রহমান ছানা, সানাউল হক পিন্টু, খাবির উদ্দীন, ইকবাল মাহমুদ খান খান্না, ইকবাল হোসেন লাকি, এ্যাড এনামুল হক, আনোয়ার হোসেন লালুসহ প্রায় ৩০ জন প্রয়াত নেতার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বিলবোর্ড টাঙ্গানো হয় শহরের গুরুত্বপুর্ণ পয়েন্টে। আওয়ামী লীগের সোনালী অতীতের এসব নেতাদের ছবি সম্বলিত বিলবোর্ড সংগঠনের তৃণমুল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মাঝে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করে। সেই সঙ্গে শনিবার টাউনকাব মিলনায়তনে গোলাম রাব্বানীর উদ্যোগে প্রয়াত নেতাদের স্মরণ ও তাদের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।
 
ব্যক্তিক্রমি এই উদ্যোগকে ঘিরে তৃণমুলের নেতাকর্মীরা ব্যাপক ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।
শনিবার বিকেলে থেকেই বিভিন্নস্তরের নেতকর্মীরা সমবেত হন টাউন কাব চত্বরে। আসেন আওয়ামী লীগের এসব প্রয়াত নেতাদের সহকর্মী প্রবীণ নেতারাও।
স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ডা. গোলাম রাব্বানীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় প্রয়াত নেতাদের পরিবারের সদস্যরা এবং আওয়ামীলীগ নেতারা বক্তব্য রাখেন।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মইনুদ্দীন মন্ডল, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড মিজানুর রহমান মিজান প্রয়াত নেতাদের স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন। বক্তারা প্রয়াত নেতারা বঙ্গবন্ধুর আর্দশ বাস্তবায়নের জন্য নিরলস সংগ্রাম করে গেছেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জের আওয়ামী লীগের শেকড়ের এইসব মানুষকে সম্মান না জানালে পরবর্তী প্রজন্মের কাছে নেতাদের দায়ি থাকতে হবে। শেকড় অনুসন্ধান করে প্রয়াত এইসব নেতাদের আদর্শ অনুসরণ করে প্রতিটি নেতাকর্মীকে কাজ করতে হবে।

সভায় আওয়ামী লীগের সভাপতি আগামী দিনে প্রায়ত আওয়ামী লীগ নেতাদের সম্মান জানাতে স্মরণ সভা করা হবে বলে তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন যে সমস্ত নেতৃবন্দ মারা গেছেন তাদের নামের তালিকা জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদকের কাছে জমার দেয়ার অনুরোধ জানান।
প্রয়াত নেতার পরিবারে পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা ও ডা বুলবুল-এ- গুলেস্তানের সন্তান ডা. সাইফুল মতিন, আওয়ামী লীগ নেতা হাফিজ উদ্দীনের সন্তান শাহজালাল শাহীন, অধ্যাপক জিকেএম শামসুল হুদা সন্তান ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল হুদা অলক, ডা. মেসবাহুল হক বাচ্চুর সন্তান মেসবাহুল শাকের জঙ্গি, নাসির উদ্দীন আহম্মেদের সন্তান ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জিয়াউর রহমান তোতা, এ্যাড. শামসুল হকের মেয়ে ও যুবমহিলা লীগের সভাপতি ইয়াসমিন সুলতানা রুমা, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফ জামান আনন্দ, সহ সভাপতি নাহিদ সিকদার প্রমুখ।
প্রয়াত নেতাদের পরিবারের পক্ষ থেকে এমন আয়োজনের জন্য আয়োজক ডা গোলাম রাব্বানীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানানো হয়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ নিউজ/ নিজস্ব প্রতিবেদক/ ০২-০৬-১৮

Games

Powered by Blogger.

Tags

Categories

Advertisement

Main Ad

International

Auto News

Subscribe Us

Breaking News

Video Of Day

Video Example
Chapainawabganjnews

Popular Posts