Business




জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন ❀ সকালে সৃষ্ট আবহ সন্ধ্যায় দিনের আলো শেষের মতই নিভে গেল

৭ দশকের ঐতিহ্যমন্ডিত প্রাচীন সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার বার্ষিক সম্মেলন নাটকীয়ভাবে স্থগিত হয়ে গেছে। নানা জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে কেন্দ্র ঘোষিত ১২ ফেব্রæয়ারিই সম্মেলন আয়োজন করার লক্ষে সকাল থেকে শুরু হয় সরকারি কলেজ শহীদ মিনার চত্বরে প্যান্ডেল নির্মাণ। আর সকালের পর থেকে বিতরণ করা হয় সম্মেলনের আমন্ত্রণ পত্র। ‘দিনবাদেই সম্মেলন’ এমন প্রেক্ষিতে সম্ভাব্য সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থীদের বিলবোর্ড ঝুলানো ও শোডাউনের রেস থাকতেই নাটকীয়ভাবে স্থগিত হয়ে যায় সম্মেলন। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাকিউল ইসলাম সাকিল ও সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রেজ ইমন সম্মেলন স্থগিত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
ছাত্রলীগের সূত্র জানায়, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সম্মেলনকে সামনে রেখে গেল মাসে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়। কেন্দ্র থেকে আগামী ১২ ফেব্রæয়ারি সম্মেলনের দিন ঠিক করা হয়। বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মামলার রায়কে ঘিরে উদ্ভুত পরিস্থিতি ও সার্বিক প্রস্তুতিতে ঘিরে নির্ধারিত এই তারিখে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে কিনা তা নিয়ে দ্বিধাদ্ব›েদ্ব ছিলেন নেতাকর্মীরা।
ওই সূত্র জানায়, দ্বিধাদ্ব›েদ্বর মাঝেই ৯ ফেব্রæয়ারি শুক্রবার সন্ধ্যায় কেন্দ্র থেকে ১২ ফেব্রæয়ারি নির্ধারিত তারিখেই সম্মেলন আয়োজনের জন্য জেলা নেতৃবৃ›দ্বকে আবারও নির্দেশ প্রদান করেন। ১২ ফেব্রæয়ারি সম্মেলন আয়োজন হচ্ছে এমন খবরে নড়েচড়ে বসেন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের সম্ভাব্য প্রার্থীরা।
সূত্র জানায়, সভাপতি পদ দখলে নানামুখি তৎপরতা চালাচ্ছেন বর্তমান সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রেজা ইমন, সহ-সভাপতি সাইফ জামান আনন্দ, সাংগঠনিক সম্পাদক মারুফ আহমেদ শাওন, যুগ্ম সম্পাদক তমাল আহম্মেদ, সহ-সভাপতি জুয়েল রানা প্রমুখ। সাধারণ সম্পাদক পদে বর্তমান সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর কবির ইউসুফ, সহ-সভাপতি নাহিদ শিকদার, সহ- সম্পাদক মোক্তার হোসেন প্রমুখ। সম্ভাব্য প্রার্থীরা শনিবার থেকে তাদের ছবি সম্বলিত প্রচুর বিলবোর্ড তৈরী করে সরকারি কলেজ এলাকাসহ আশেপাশের এলাকায় টাঙ্গিয়ে দেন। রোববার বিকেলে সভাপতি প্রার্থী মারুফ আহমেদ শাওনের একটি শো-ডাউন শহর প্রদক্ষিণ করে। রোববার সকাল থেকে সরকারি কলেজ শহীদ মিনার চত্বরে প্যান্ডেল তৈরীর কাজ শুরু হয়। সম্মেলনের মাত্র একদিন আগে সকাল থেকে বিতরণ শুরু হয় আমন্ত্রণ পত্র। জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছিলেন এমন তিন জন নেতা জানান, দুপুরে সেলফোনে কথা বলে আমন্ত্রণ পত্র তাদের (সাবেক নেতাদের) ঠিকানায় আমন্ত্রণ পত্র পৌছে দেয়ার কথা জানানো হয়।
বিশাল এই ছাত্র সংগঠনের সম্মেলনের আবহ হাটৎ সৃষ্টি হওয়ার পর সন্ধ্যায় দিনের আলো শেষ হওয়ার মত শেষ হয়ে যায়। নেতাকর্মীদের মুখে মুখে ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘোষণা আসে সম্মেলন স্থগিতের। জেলা ছাত্রলীগের নেতারা সম্মেলন স্থগিত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাকিউল ইসলাম সাাকিল বলেন, ‘ঠিকমত প্রস্তুতি নিতে না পারার কারণে কেন্দ্রীয় নির্দেশে সম্মেলন স্থগিত হয়েছে’। সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রেজা ইমন বলেন, ‘ কেন্দ্রীয় নেতারা হটাৎকরে সম্মেলন স্থগিতের নির্দেশ দিয়েছেন। তবে আগামী ২৫/২৬ ফেব্রæয়ারি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে পারে’।
উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ১৯ সাকিউল ইসলাম সাকিলকে সভাপতি, আরিফুর রেজা ইমনকে সাধারণ সম্পাদক ও মারুফ আহমেদ শাওনকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে কমিটি দেয়া হয়। ওই সময় এই কমিটির বিরোধীতা করে লেলিন প্রামাণিককে সভাপতি ও ওয়াহেদুজ্জামান ওহেদকে সাধারণ সম্পাদক করে স্থানীয়ভাবে পাল্টা কমিটি গঠন করা হয়। তবে তা বেশি দূর গড়ায়নি।


চাঁপাইনবাবগঞ্জ নিউজ/ নিজস্ব প্রতিবেদক/ ১১-০২-১৮

Games

Powered by Blogger.

Tags

Categories

Advertisement

Main Ad

International

Auto News

Subscribe Us

Breaking News

Video Of Day

Video Example
Chapainawabganjnews

Popular Posts