mainpageads

উপবৃত্তির আওতায় এসেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সাড়ে ৬ হাজার শিক্ষার্থী

দরিদ্র শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার পথ সুগম করতে সরকারের উচ্চ মাধ্যমিক উপবৃত্তি প্রকল্পের আওতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৬ হাজার ৪২৩ জন শিক্ষার্থীকে উপবৃত্তি প্রদান করা হচ্ছে। প্রকল্পের আওতায় জেলার ৫ উপজেলার ১০৭ টি কলেজ ও মাদ্রাসার একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা এই সুবিধা ভোগ করছেন।
সূত্র জানিয়েছে, শিক্ষা নিয়ে গড়ব দেশ, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয় উচ্চ মাধ্যামিক উপবৃত্তি প্রকল্প হাতে নেয়। প্রকল্পের আওতায় সারাদেশের দরিদ্র শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রম অব্যহত রাখতে এবং এগিয়ে নিয়ে যেতে এই সহায়তার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ওই সূত্র জানায়, প্রকল্পের আওতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১০৭ টি কলেজ ও মাদ্রাসার ৬ হাজার ৪২৩ জন শিক্ষার্থীকে উপবৃত্তি প্রদান করা হচ্ছে। এরফলে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার খরচ জোগানে সহজ হবে এবং শিক্ষার্থী ঝরে পড়ার হারও বহুলাংশে কম হবে।
সূত্র জানায়, প্রকল্পের আওতায় আসা শিক্ষার্থীদের মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে উপবৃত্তির টাকা পৌছানো কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। এ প্রসঙ্গে উচচ মাধ্যমিক উপবৃত্তি প্রকল্পের পরিচালক যুগ্ন সচিব শ্যামা প্রসাদ বেপারী বলেন, ‘দরিদ্র শিক্ষার্থীদের শিক্ষার পথ সুগম রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই উদ্যোগ। আগে উপবৃত্তির টাকা সঠিকভাবে শিক্ষার্থীরা পেত না, অনেক ক্ষেত্রেই সমস্যা ছিল। তবে মোবাইল ব্যাংককিংয়ের মাধ্যমে এখন তারা দ্রুতই উপবৃত্তির টাকা পেয়ে যাচ্ছে এবং লেখাপড়ার খরচ যোগানো সহজ হচ্ছে’।
তিনি বলেন, সবাইকে নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে যেতে হবে। শিক্ষার্থীরা যাতে বিপথে চলে না যায় সেই দিকে শিক্ষক অভিভাবকদের খেলায় রাখতে হবে। সবাই একযোগে কাজ করলে দেশ আরো বহুদূর এগিয়ে যাবে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শিক্ষা অফিসার মতিউর রহমান জানিয়েছে, প্রকল্পের আওতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১০৭ কলেজ ও মাদ্রাসার ৬ হাজার ৪২৩ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী প্রতিমাসে ১৭৫ টাকা করে এবং মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা ১২৫ টাকা করে লাভ করছে। পাশাপাশি বই কেনা বাবদ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের ৭ শ টাকা ও মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীদের ৬ শ টাকা করে দেয়া হচ্ছে। প্রকল্পের আওতায় শিক্ষার্থীদের ৫০ টাকা করে টিউশন ফিও দেয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা ইতিমধ্যে সুবিধা ভোগ করা শুরু করেছেন। যা তাদের শিক্ষা বিস্তারের জন্য সহায়ক হচ্ছে। প্রবল্প যতদিন চলবে তার ততদিন সুঠুভাবে উপবৃত্তি লাভ করবে’।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ নিউজ/ নিজস্ব প্রতিবেদক/ ১০-০৬-১৭