mainpageads

চার গ্রামে ৮ ঘন্টা জঙ্গি বিরোধী অভিযানে অস্ত্র বিষ্ফোরকসহ ৩ জেএমবি সদস্য আটক

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর ও নাচোল উপজেলার চার গ্রামে জঙ্গি বিরোধী অভিযান চালিয়ে অস্ত্র বিষ্ফোরকসহ ৩ জেএমবি সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব-৫ এর সদস্যরা। বুধাবার ভোর সাড়ে ৪টা থেকে বেলা সোয়া ১১টা পর্যন্ত এই অভিযান চালানো হয়। অভিযানে তিন কেজি গান পাউডার, ৩টি পিস্তল, একটি ওয়ান শ্যুটার গান, ৩টি ম্যাগাজিন, ১৩ রাউন্ড গুলি ও একটি খেলনা পিস্তল উদ্ধার করা হয়।
র‌্যাব-৫ এর অধিনায়ক লে. কর্ণেল মাহবুব আলম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার ভোর সাড়ে চারটার দিকে গোমস্তাপুর বাজারপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩ জনকে আটক করা হয়। আটক হওয়ারা হচ্ছে, গোমস্তাপুর উপজেলার বালুগ্রাম শিমুলতলা গ্রামের মফিজ উদ্দীনের ছেলে ছেলে আব্দুস শুকুর ওরফে শুকুদ্দি (৪৩), চকপুস্তম এলাকার টুনু মড়লের ছেলে সাইফুল আলম (৩২) ও বালুগ্রাম রাজারামপুর মহল্লার মৃত আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৪৩)। এসময় তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় তিন কেজি গান পাউডার, একটি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন ও ৪ রাউন্ড গুলি।
র‌্যাব অধিনায়ক মাহবুব বলেন, ‘আটক তিনজন নব্য জেএমবি তামিম-সারোয়ার গ্রুপের সদস্য। তারা নাশকতার পরিকল্পনা করছিল বলে র‌্যাবের কাছে খবর ছিল’।
র‌্যাব, আটক ৩ জেএমবি সদস্যের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব সদস্যরা ভোরেই গোমস্তাপুর উপজেলার বালুগ্রাম শিমুলতলা গ্রামের আব্দুস শুকুরের বাড়ি, চকপুস্তম এলাকার এজাবুল হকের বাড়ি, নাচোল উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের চাদপাড়া গ্রামের আব্দুল মজিদের বাড়ি ও আলি সাহাসপুর গ্রামের আফজালের বাড়ি ঘিরে ফেলে। র‌্যাব সদস্যরা দু’ভাগে ভাগ হয়ে চার বাড়িতে অভিযান চালায় এবং শুকুরের বাড়ি থেকে দুটি পিস্তল, একটি ওয়ান শ্যুটার গান, ২টি ম্যাগাাজিন, ৯ রাউন্ড গুলি ও একটি খেলনা পিস্তল উদ্ধার করা হয়।
অভিযান শেষে র‌্যাব-৫ এর অধিনায়ক শুকুরের বাড়ির সামনে প্রেস ব্রিফিং-এ বলেন, ‘ চাঁপাইনবাবগঞ্জ এলাকায় প্রায় ৫০ জনের মত জঙ্গি সক্রিয় রয়েছে। তারা নাশকতার জন্য অস্ত্র ও বিষ্ফোরক মোজুদ করেছে। অতিসম্প্রতি জেলা পুলিশ জঙ্গি বিরোধী অভিযান চালিয়েছে। র‌্যাব চালাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকবে’।
তিনি বলেন, ‘ অভিযানে নাচোল উপজেলার চাদপাড়া গ্রামের আব্দুল মজিদের বাড়িতে অভিযান চালানোর সময় তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নেয়া হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে’। তিনি জানান, গোমস্তাপুর বাজারপাড়া থেকে অস্ত্র ও বিস্ফোরকসহ আটক হওয়া তিনজনের বিরুদ্ধে গোমস্তাপুর থানায় মামলা দায়ের করা হবে।
র‌্যাব জানায়, আটক শুকুর এলাকায় জেএমবি’র একজন প্রশিক্ষণদাতা। সে নাচোলের আলোচিত জেএমবি সদস্য সালমান হত্যা মামলার পলাতক আসামী। ২০১২ সালে অভ্যান্তরিণ দ্বন্দে সালমান নামের এক জেএমবি সদস্যকে খুন হওয়ার মামলায় শুকুর আসামী।
এদিকে র‌্যাবের বুধবারের অভিযানে শুকুরকে আটক করা হয়েছে বলা হলেও শুকুরের পিতা মফিজ উদ্দীন অভিযোগ করেন, আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে প্রায় ১৫ দিন আগে শুকুরকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ  নিউজ/ নিজস্ব প্রতিবেদক/ ২৪-০৫-১৭