mainpageads

সিলেটে জঙ্গি হামলায় আহত লে: কর্ণেল আজাদের সুস্থ্যতার জন্য দোয়া কামনা

সিলেটের আতিয়া মহলে প্যারা কমান্ডোর জঙ্গী বিরোধী অভিযানের সময় দক্ষিণ সুরমার গেট টিকর মাদ্রাসার সামনে জঙ্গিদের হামলায় আহত র‌্যাবের গোয়েন্দা বিভাগের  প্রধান ও শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের সন্তান লে: কর্ণেল আবুল কালাম আজাদের সুস্থ্যতার জন্য দোয়া কামনা করা হয়েছে। পাশাপাশি হামলাকারীদের বিচার ও জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ঘৃর্ণা প্রকাশ করেছেন সাধারণ মানুষ।
আহত আবুল কালাম আজাদের শাশুড়ী সাবেক এমপি ডা. মইনুদ্দীন আহম্মেদ মন্টু’র স্ত্রী মিরা বেগম সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছেন। সোমবার দুপুরে তিনি এ প্রার্থনা জানান।
তিনি বলেন, ‘দেশকে জঙ্গিমুক্ত করার অভিযানে জঙ্গিদের কাপুরুষোচিত হামলায় আমার জামাতা আহত হয়ে এখন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন’। তিনি বলেন, ‘ জঙ্গিদের জঘন্য কর্মতৎপরতার সাথে ইসলামের কোন মিল নেই। বরং ইসলাম বিরোধী কার্যকলাপের সাথে মিল রয়েছে’।
আহত লে: আবুল কালাম আজাদের চাচা আফসার আলী বলেন, ‘আমার ভাতিজা দেশ প্রেমের পরিচয় দিতে গিয়ে জঙ্গিদের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে মুত্যৃর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। এ সময় আমাদের ঝাঁপিয়া পড়তে হবে জঙ্গি দমনে’। আহতের চাচাতো ভাই মাওলানা সোহরাব হোসেন বলেন ‘আমাদের দেশ হতে জঙ্গি উৎখাত করতে না পারলে শ্রেষ্ঠ ধর্ম ইসলাম হুমকীর মুখে পড়বে’।
জেলা যুবলীগের সহসভাপতি তোহিদুল আলম টিয়া বলেন, ‘৭১এর মত শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের প্রতিটি মহল্লায় যুবকদের জঙ্গিবিরোধী কমিটি গঠন করে তাদের অপতৎপরতার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা উচিত’।
স্থানীয় সাধারণ মানুষ জঙ্গি তৎপরতার বিরুদ্ধে ঘৃর্ণা প্রকাশ করে জঙ্গি তৎপরতা বন্ধে সরকারকে আরো কঠোর হবার আহবান জানান।
উল্লেখ্য যে গত শনিবার  সিলেটের আতিয়া মহলে প্যারা কমান্ডোর জঙ্গিবিরোধী অভিযানের সময় জঙ্গিদের হামলায় র‌্যাবের গোয়েন্দা বিভাগের প্রধান ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগ্জ উপঝেলার মনাকষা ইউনিয়নের সাহাপাড়া গ্রামের মৃত রেজাউল করিম ও সায়েদা বেগমের ছেলে ও সাবেক সাংসদ ডাক্তার মউন উদ্দিনের ছোট জামাতা লে কর্নেল আবুল কালাম আজাদ গুরতর আহত হয়। তিনি বর্তমানে সিঙ্গাপুরে  মাউন্ড এলিজাবেথ হাসপাতালে সংকটাপন্ন অবস্থায় চিকিৎসাধীন আছেন।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ নিউজ/ নিজস্ব প্রতিবেদক/ ২৭-০৩-১৭

,